ইস্‌কন ইয়ুথ ফোরাম

এক নজরে ইসকন ইয়ুথ ফোরাম (IYF)

উদ্দেশ্য ও তাৎপর্য:

শুদ্ধ আত্মা হিসেবে প্রত্যেকেই প্রকৃতিগতভাবে পরম সুখ ও স্বচ্ছন্দময় জীবনের অধিকারী। কিন্তু সমকালীন অস্বাস্থ্যকর ও চরম

বিস্তারিত

জাগ্রত ছাত্র সমাজ (JCS)

আজকের শিশু আগামীর ভবিষ্যৎ এবং পরবর্তীতে তারাই সমাজের পরিচালনা করবে, তাই তাদের প্রকৃত বুদ্ধিমত্তাসম্মন্ন ও দায়িত্বশীল করে গড়ে তুলতে হবে।

বিস্তারিত

ফুড ফর লাইফ

আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) সারা বিশ্বব্যাপি স্বনামধন্য একটি সনাতন ধর্মীয় সংগঠন। পারমার্থিক কল্যাণের পাশাপাশি বিশ্বব্যাপি দরিদ্র মানুষের মাঝে উদারভাবে বিনামূল্যে খাদ্য বিতরণের লক্ষে ‘ইসকন ফুড ফর লাইফ’বিভাগটি প্রায় ৪০ বছর সময় ধরে সেবা প্রদান করে

বিস্তারিত

মায়াপুর ইন্সটিটিউট (MI)

শাস্ত্রীয় শিক্ষা বিষয়ে পূর্বতন আচার্যগণের

মনোভাব  উদ্দেশ্য

শ্রীমদ্ভাগবত, ষট্সন্দর্ভ, বেদান্তদর্শন প্রভৃতি শুদ্ধভক্তি তাৎপর্যময়তা দেখাইবার আমার আন্তরিক যত্ন ছিল । এই কার্যের ভার তুমি গ্রহণ করিবে। শ্রীমায়াপুরে বিদ্যাপীঠ স্থাপন করলে মায়াপুরে উন্নতি হবে।

শ্রীল ভক্তিসিদ্ধান্ত সরস্বতী ঠাকুরের প্রতি শ্রীল ভক্তিবিনোদ ঠাকুরের নির্দেশ

গীতা – পরমার্থ-বিদ্যালয়ের প্রাথমিক পুস্তক । এতে পরমার্থে প্রাথমিক প্রবেশার্থীর জন্য Lessons আছে। প্রথমে elementary studies তারপর practical studies সর্বশেষে higher studies হ’ল ভাগবত। ভাগবতে comparative studies আছে। comparative study সম্পন্ন করলে ভাগবত হতে পারা যায়।

বিস্তারিত

ভক্তিবেদান্ত গীতা একাডেমী

বিস্তারিত

 

 

ভক্তিবৃক্ষ

ভক্তিবৃক্ষের ভাবধারা  শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভু

একলা মালাকার আমি কাহাঁ কাহাঁ যাব।

একলা বা কত ফল পাড়িয়া বিলাব ॥ (চৈ.চ)

অনুবাদ: আমি একমাত্র মালাকার একা একা কত জায়গায় যেতে পারি? কত ফলই বা পেড়ে বিলাতে পারি?

ভক্তিবৃক্ষ কি:

প্রত্যেক ব্যক্তি যাতে ভক্তিযোগ অনুশীলন করতে পারে, ভক্তি মার্গে বিকাশ লাভ করে এবং সেই প্রক্রিয়ার প্রচার ও প্রসার সাধন করতে পারে সেই উদ্দেশ্যে ভক্তিবৃক্ষের উৎপত্তি হয়, যা ইসকন প্রবর্তিত ও শাস্ত্র নির্দেশিত।

 

বিস্তারিত

নিত্যসেবা বিভাগ

আপনি জানেন কি, আপনার উপার্জিত অর্থ আপনার পরিবারের দুঃখের কারণ হতে পারে আবার আনন্দেরও উৎস হতে পারে? আমরা যখন আমাদের পরিবারের সহিত ভগবানকে যুক্ত করি, তখনই কেবল এক দিব্য আনন্দময় সংসার উপলব্ধি করতে পারি। আর এভাবে আমাদের শ্রম ও উপার্জিত অর্থ দ্বারা ভগবানের সেবা করার মাধ্যমে আমাদের কর্মের সহিত ভগবানকে যুক্ত করে দুঃখ, দুর্দশাময় জীবনকে জয় করতে পারি ।

সেবা অঙ্গিকার সমূহ

বিস্তারিত

 

নামহট্ট বিভাগ

গৃহাভ্যন্তরকে সুখময় করে তুলতে হলে পরিবারে সকলে মিলে সকাল ও সন্ধ্যায় একত্রে হরেকৃষ্ণ মহামন্ত্র কীর্তন করা উচিত। শ্রীমদ্ভাগবতম, শ্রীমদ্ভগবদগীতা, ভগবৎতত্ত্ব সমন্বিত গ্রন্থাদি পাঠ করা উচিত। ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে নিবেদিত প্রসাদ গ্রহণ করা উচিত।    -শ্রীল প্রভুপাদ।

 

শ্রীমন্নিত্যানন্দ প্রভুর নামহট্ট

নদীয়া গোদ্রুমে নিত্যানন্দ মহাজন।

পাতিয়াছে নামহট্ট জীবের কারণ॥

বিস্তারিত

 

নতুন ভক্ত প্রশিক্ষণ বিভাগ (NDP)

নতুন ভক্ত প্রশিক্ষণ বিভাগ

ভগবদ্ভক্তির তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক শিক্ষার সুসমন্বয়

আপনি কি আন্তজার্তিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) এ যুক্ত হয়ে শ্রীমদ্ভবদগীতা, ভাগবদ আদি শাস্ত্রের আলোকে এবং শ্রীমন্মহাপ্রভু ও পূর্বতন আচার্যবর্গের শিক্ষা ও আদর্শে আপনার জীবনকে মহত্ত্বপূর্ণ ও আনন্দময় করে গড়ে তুলতে চান?

তবে নতুন ভক্ত প্রশিক্ষণ কোর্সটি করে তার শুভ সূচনা করুন।

বিস্তারিত

পূজারী বিভাগ

পরমেশ্বর ভগবান শ্রীশ্রীজগন্নাথদেবের অষ্টকালীন সেবায় যুক্ত হয়ে আপনার সংসার জীবনকে আনন্দময় করে তুলুন

সেবার নাম                                          প্রণামীর পরিমাণ

একদিনের ধুপ সেবা—————৩০১/=

একদিনের কর্পূর সেবা————–২৫১/=

একদিনের দীপ সেবা—————৪০১/=

শীতল ভোগ———————–৫০১/=

বিস্তারিত

 

স্বেচ্ছাসেবক বিভাগ

সেবা দ্বারাই ভগবানের অপ্রাকৃত কৃপা লাভ সম্ভব
ইসকন স্বেচ্ছাসেবকদের কার্যক্রম:
গ্রন্থ বিতরণ, প্রসাদ বিতরণ, মন্দির সজ্জ্বা ।
নগর সংকীর্তনে অংশগ্রহণ ও শৃঙ্খলা প্রদান করা।
মন্দির কেন্দ্রিক বাংলাদেশের যে কোনো স্থানে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সেবা প্রদান করা।
মন্দিরের শৃঙ্খলা রক্ষা ও নিরাপত্তা প্রদানে সহায়তা করা।
অপ্রাকৃত সেবার উদ্দেশ্য:

বিস্তারিত

 

ইসকন লাইফ মেম্বার

“ইসকন লাইফ মেম্বার ”-হয়ে বিশ্বব্যাপি কৃষ্ণভাবনামৃত আন্দোলনের গর্বিত অংশীদার হোন

যৎকরোষি যদশ্নাসি যজ্জুহোষি দদাসি যৎ

যত্তপস্যসি কৌন্তেয়য় তৎকুরুষঃ মদর্পণম॥– (গীতা. ৯/২৭)

বিস্তারিত

 

 

সংকীর্তন বিভাগ

যখন কেউ খোল করতাল বাজিয়ে ভগবানের নাম কীর্তন করে তখন তাকে বলা হয় সংকীর্তন। আবার কেউ যখন ভগবানের গুণ মহিমা সমন্বিত গন্থাবলী বিতরণ করেন তাও সংকীর্তন। মৃদঙ্গের আওয়াজ যেমন মানুষকে জাগিয়ে তোলে তেমনিভাবে অপ্রাকৃত গ্রন্থাবলীও মানুষকে মায়ারূপী ঘুম থেকে জাগিয়ে তুলতে পারে। এমনকি যেসব স্থানে মৃদঙ্গের আওয়াজ পৌছানো সম্ভব নয় সেখানে এই দিব্য গ্রন্থগুলি পৌছাতে পারে। এজন্য গ্রন্থকে

বিস্তারিত